সাহিত্য পত্র

একুশে জুলাইর জন্য কয়েকটি কবিতা
কবি : স্নিগ্ধা নাথ, মৈত্রায়ণ চৌধুরী, সৌমিত্রশঙ্কর দাস অধিকারী
২৫ জুলাই ২০২১
Kishu Adhikari_edited.jpg
২১'শে জুলাই
সৌমিত্রশঙ্কর দাস অধিকারী

প্রচণ্ড খেয়ালী সেই রাত-- ২১'শে জুলাই,

ছিল বৃষ্টি-ঝড় বটেই, সাথে ছিল চাঁদও, সেই রাতে।

সেই রাতের পরের ভোরটা বোধহয় ছিল গোমড়ামুখো,

যেন সবজান্তা, দৈবজ্ঞ কোনও বৃদ্ধ চারচোখো

স-অ-ব কি সে জানত?

গুলি খেয়ে মরবে দুটি লোক, তা-ও?

আজও সেই বৃদ্ধ চিৎকার করে বলে,

' ভুলেও ভুলোনি তারে নির্বোধ যুবক,

দেখনা মারছে ছুরি সামনা থেকে মানুষ, অথবা মুখ ঢেকে মানুষ, মানুষকে।
নির্বোধ, ভুলতে পারোনি তবু ২১'শে জুলাই।
ঘরশক্র বিভীষণে ছেয়ে থাকা কলঙ্কিত ২১'শে জুলাই? '

কি করে ভুলবো?

আমি তো দেখিনি সেই রাত --

আমার নাসারন্ধ্রে পৌছয়নি রক্ত ও পোড়া বারুদের মিশ্রিত গন্ধ।
ধর্ষিতা মায়ের বুকে সুবেশ পুত্রের সমারোহ, এও দেখিনি ।

আমার শ্বাসেতে থাকে ২১'শে জুলাই
আমার প্রিয়ার স্তনদুগ্ধেও থাকে, সেই রাত।

শিশু এলে সেই দুধ পানে-ই বড় হয়ে উঠবে সে।

তার হাসি, তার কান্নায়, তার অসহায় পিতা করবে স্মৃতি রোমন্থন।
অচেনা, অদেখা, প্রচণ্ড খেয়ালী সেই রাত-- ২১শে জুলাই।

Snigdha Nath_edited.jpg
অক্ষর গুলি তাকিয়ে থাকে
স্নিগ্ধা নাথ

অক্ষর গুলি পরস্পর
তাকিয়ে থাকে ,
বুকে কবে তীর
বিধেছিল সেই দিনের কথা -
স্বপ্নে দেখা ছবির মতোই
রাত্রি শেষে বুকের ভিতর 

হাতের নিশান কোথায় হারায় --

দুচোখ জুড়ে কেবল বেজার
ভাবনা যত গুমরে কাঁদে ,
স্বপ্নে দেখা ছবির মতোই
পংক্তি যত সামনে আসে
বুকে বেঁধা তীর ,

শরীর আজো রক্তমাখা ।

সীমান্ত এ শহর জুড়ে অন্ধকারে
ত্রস্ত পায়ে ছুটছে কারা?

মাথার উপর ঝুলছে খাড়া
তবু হৃদয় ভরা ভালোবাসায়
অক্ষরেরা তাকিয়ে আছে 
অবোধ আশায় ।

Maitrayan Choudhury_edited.jpg
উনিশ ও একুশ
মৈত্রায়ণ চৌধুরী

ভাষা যখন ভাবনায়

আত্মসুখের জানলায়,

গরাদ বিহীন রোজকার

ধর্ম তোমায় ফুঁৎকার !

...

শাসনে নদী, আসনে ভাষা

গেরুয়া শকুনি সর্বনাশা,

জবান জীবন লালন সাঁই

বুকের খাঁচায় ধর্ম ছাই !

...

ঘামের বদলে আর কি চাই ?

সিঁদুরে মেঘ এলে ভয় না পাই,

আগুন মেশানো আখর কাল

ভাষায় জড়ানো লাল মশাল ।