সাহিত্য পত্র

কবিতায় স্বাধীনতা দিবস

কবি : রবিশঙ্কর ভট্টাচার্য, আ.ফ.ম. ইকবাল, সুময় মুখার্জী, শঙ্কর চৌধুরী

 

১৫ আগস্ট ২০২১

 

স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে ৪ জন কবির একটি করে কবিতা একসাথে ...

কোলকাতা থেকে সুময় মুখার্জী

হাফলং থেকে আ.ফ.ম. ইকবাল

হাইলাকান্দি থেকে শঙ্কর চৌধুরী

শিলচর থেকে রবিশঙ্কর ভট্টাচার্য

Sumay Mukherjee_edited.jpg
স্বাধীনতার সুপ্রভাত
সুময় মুখার্জী (কোলকাতা)

স্বাধীন দেশেও পরাধীনতা 
দেখছে কেন আমার চোখ,
জোর করে যার দিচ্ছ বিয়ে 
সেই মেয়েটাও স্বাধীন হোক... 

ছেলেদেরও অধিকার থাক 
বেছে নেওয়ার সাহিত্যকে, 
সেই বৌদিও ডিভোর্সী হোক 
ভাল্লাগে যার ঠাকুরপোকে... 

সেই শিশুও থাকুক বেঁচে 
রাস্তাই যার আঁতুড় ঘর, 
সাহসী মেয়ে মেট্রো দাদুকে 
কষিয়ে এবার মারুক চড়... 

সমকামীতাও এবার থেকে 
সামাজিক ভাবে বৈধ হোক, 
স্বাধীন দেশেও পরাধীনতা 
মানতে চায়না আমার চোখ... 

জাতটা ভুলে হিন্দু ছেলে 
মিশুক এসে ঈদের ভিড়ে, 
গুলির আওয়াজ বন্ধ থাকুক 
জঙ্গলে আর কাশ্মীরে... 

১৫ আগষ্ট । স্বাধীন দেশ । অনেক বড়ো কথা,
তবু বলব আমার চয়েস ব্যক্তিস্বাধীনতা ।।

AFM%20Iqbal_edited.jpg
তোমাকে বলছি, স্বাধীনতা
আ ফ ম ইকবাল (হাফলং)

স্বাধীনতা- 
মখমলের শুভ্র পোশাক পরিহিতা স্বাধীনতা-  

কেমন চিত্তাকর্ষক তুমি!  
কত বিস্তৃত তবে ঝলসানো ডানা!  
স্বাধীনতা- পনেরোর রাজপথে  
বিন্যস্ত মিছিলে তোমার পরিচয়?   
স্বাধীনতা- উচ্চাঙ্গ অভিভাষনে 
স্মরণ তোমারে অবশ্যই হয়।

 

স্বাধীনতা-
একটি শব্দ মাত্র নয়, 
স্বাধীনতা- অখন্ড আকাশে  
খন্ড খন্ড মেঘে কি হয়  
তোমার আত্মপরিচয়?  
প্রদীপ্ত আকাশখানা  
কখনো যে ঢাকা পড়ে রয়-  
বিশাল ছাদের তলায়  
বিমর্ষ জনতাকে দেখে  
কেন যেন আমার অন্য কিছু মনে হয়! 

স্বাধীনতা- কথা ছিল তেরঙ্গায় মোড়ে  
পৌঁছে দেয়া হবে ঘরে ঘরে-  
ক্ষুধিতের অন্ন,   
বঞ্চিতের বাঞ্ছিত আবরণ,  
ঘুরবেনা পথে পথে  
উলঙ্গ বেদনা, ক্ষুধা, ঘৃণা  
হরেক প্রকারের রক্তিম বেদনা।

 

স্বাধীনতা-  
তোমার পোশাক পরা হবে সার্থক  
যখন জননীর নাভিমূল থেকে  
মুছে যাবে সকল ক্ষতচিহ্ন!  
ফুটবে কৃষ্ণচূড়ার মঞ্জরী হরেক দাওয়ায়  
স্বপ্নের গোলাপ পাপড়িতে  
নিভৃতে মধুকর করবে গুঞ্জন! 

বলি তাই স্বাধীনতা-  
তুমি দীর্ঘজীবী হও,  
বেঁচে থাকো আমার অস্তিত্বে  
আমার ভালোবাসার পরিমণ্ডলে, 
ফুটন্ত রক্তকরবীর ডালে ডালে; 
একদিন আমরা মানুষ হবো,  
মানবিক চিত্তে জড়িয়ে নেবো তোমায়  
নিষ্কলুষ জননীর বিনয়ী সন্তান-সম। 

Rabi Sankar Bhattacharjee_edited.jpg
স্বাধীনতা
রবিশঙ্কর ভট্টাচার্য (শিলচর)

হীরক জয়ন্তীর উৎসব
সরগরম লালকেল্লা
বাক‍্যবাণে মথিত বাতাস,
বিকাশের আশ্বাসে
গর্বিত ভারতবাসী
উই আর ইন্ডিয়ান।

পূব পশ্চিমের মাটি
খাল কেটে খন্ডিত স্বাধীনতা,
শাসক শোষকের উল্লাস
মধ‍্যরাতে জম্পেশ পার্টি
ক্ষমতার ভাগ বাটোয়ারা।

ফসল দেশভাগ, বাস্তুহারা উদ্বাস্তু
নতুন কত শব্দের জন্ম
ডিটেনশন ক‍্যাম্প, ডি ভোটার, খিলঞ্জিয়া,
বেঁচে থাক স্বাধীনতা।

Shankar Choudhury_edited.jpg
লহ প্রণাম...
শঙ্কর চৌধুরী (হাইলাকান্দি)

মোটেই সহজ ছিল না
প্রায় দু'শো বছরের লড়াই 
কত ঘাত প্রতিঘাত আত্মত্যাগ
কত যন্ত্রণা, কিন্তু তবুও, তারা 
লক্ষে ছিলেন অবিচল !

 

দলবাজি, গোষ্ঠী বাজী
ভাঙ্গা গড়ার লড়াই, কত
অদৃশ্য শক্তির প্রভাব 
তবুও লক্ষে ছিলেন অবিচল তারা 
যাদের  নিয়ে আমাদের বড়াই।

 

হাসতে হাসতে ফাসির মঞ্চে
গেয়ে গেলেন তারা জীবনের 
জয়গান ! বাকরুদ্ধ কত কণ্ঠ, 
কিন্তু লক্ষে অবিচল, বীর সন্তান।

 

তাই হয়তো আজ পঁচাত্তরের 
উদযাপন ! দারুণ তৃপ্তি।  
আমরা ভুলিনি, ভুলবো না
আজ যারা নেই কিন্তু কখনো তারা, ছিলেন বলেই আজকের এই আনন্দ। 

লহ প্রণাম -
ভারত মায়ের বীর সন্তান।।