top of page

সাহিত্য পত্র

দু’টি কবিতা

জয়িতা দাস

 

ঈশান কথা পূজাবার্ষিকী ১৪২৮-এর জন্য জয়িতা দাসের দুটি কবিতা

"স্মৃতি বিস্মৃতির চেয়ে কিছু বেশি"

এবং

"সবচেয়ে উঁচু তারাকে আমি বলি"

Jayita Das.jpg

'স্মৃতি বিস্মৃতির চেয়ে কিছু বেশি'

 

কিছু মুহূর্ত ঝিনুকের মতো

কিছু মুহূর্ত প্রজাপতির,

কিছু মুহূর্ত ঝাউয়ের কাঁপন

সঙ্গীবিহীন বুক শিরশির।

 

কিছু মুহূর্ত এক ডুব জল

ঘাটা-আঘাটায় ছলক-ছলাৎ,

কিছু মুহূর্ত রসলুন বাঈর

টপ্পা ঠুমরি আহা কেয়া বাৎ।

 

কিছু মুহূর্ত ভেজা আলপনা

দেবীপক্ষের ঢাকের কাঠি,

কিছু মুহূর্ত পিছল ঘাটে

শুধু বসে থাকা... একলাটি।

 

কিছু মুহূর্ত দরবেশী সুর

নিঝুম রাতে বুক আনচান,

বুকের ভেতর দুঃখ পোড়ে

ছলকে ওঠে কি আতরদান!

 

কিছু মুহূর্ত একলা দুপুর

চিলে কোঠা আর রঙিন মলাট,

চোখের পাতায় হুরপরীদের

আসর বসেছে জমজমাট।

 

কিছু মুহূর্ত নিভাঁজ বালিশ

বোতাম ছেঁড়া লুকোনো ঝড়,

কিছু মুহূর্ত বিরহ যাপন

শহরে তখন ভরা বাদর।

 

কিছু মুহূর্ত পাখির জীবন

উড়নচণ্ডী দিন গুজরান,

কলেজবেলার দামাল যুবক

ছুঁয়ে দেখো এই স্মৃতিপুরাণ।

'সবচেয়ে উঁচু তারাকে আমি বলি'

 

আমিও খেলতে জানি, কানে ফিসফিস তোকেই চাই

ভাঙছি তোকে, ভাঙচি এমন পাগলপারা মত্ততায়।

তবুও কি ছাই ভাঙতে পারি! হাতের ওপর নরম হাত--

গোপন সুখ ছলকে ওঠে, কষ্ট গায়েব উষ্ণতায়।

বুকের ভেতর এলাচদানা, পাখপাখালির নরম সুর

মৃত্যু জানে জীবন কেমন, ফুরায় না সব শূন্যতায়...

bottom of page