সাহিত্য পত্র

দুটি কবিতা

রবি শঙ্কর ভট্টাচার্য্য

 

ঈশান কথা পূজাবার্ষিকী ১৪২৮-এর জন্য রবি শঙ্কর ভট্টাচার্য্যের দুটি কবিতা

"শিশির বিন্দু"

"সুদীন"

Rabi Sankar Bhattacharjee_edited.jpg

শিশির বিন্দু

একলা ঘরে
ভর দুপুরে
আটকে থাকে মন,
মাঠের বুকে
ঘুঘু ডাকে
শান্ত উপবন।

শারদবেলার প্রভাত কালে
গন্ধ ভাসে ফুল মুকুলে
মিষ্টি হাওয়া বইছে দেখো
সবই আপনজন।

তোমায় আমায় দেখা হবে
ভালোবাসার শর্ত রবে,
এই আশাতে বসে থাকা
আকুল এ জীবন।

ভাসছে কত নতুন ছবি
দেখছে বসে প্রবীণ কবি,
দিনের পরে দিন চলেছে
খাচ্ছে শুধু বয়স গিলে,
হয়নি দেখা জগৎটাকে
উদাস থাকে মন।

আকাশ ভরা তারা ফুটুক
জোনাকিরাও জ্বলে উঠুক,
পেরিয়ে এসে মহাসিন্ধু
প্রাণভরে বেঁচে থাকুক
নতুন ঘাসের ডগায় বসুক
স্নিগ্ধ শিশির বিন্দু।

সুদিন

ঝরনা যেমন বয়ে যায়
ঢালু পথ বেয়ে,
তুমি আমি হেঁটে চলি
দিন ছুঁয়ে ছুঁয়ে।

আকাশ পরে মেঘ জমেছে
মাঠের পরে ধুলো,
কাজলা দীঘির আঁধার পারে
ফুটবে জেনো আলো।

সময় এখন বিষাদ ভরা
সবার মনে মনে,
খাবলে খাওয়া জীবন যাপন
ধুকছে যেন ধরা।

রাতের পর দিন আসে
সবাই তা জানে,
তবু কেন মানুষ কাঁদে
অযথা বিষাদ মনে। 

দু:খ সুখ দুজনেরই
একই সাথে চলা
সমান্তরাল পথেই তাদের
হাসা এবং খেলা।

একথাটা বুঝতে কেন
মানতে চায়না মন,
উড়িয়ে দিয়ে সব যাতনা
থাকব প্রতিক্ষণ।

এই আশাতে বসে আছি 
দমবন্ধ ঘরে,
আসবে সুদিন জানি আমি
ঝরবে তারা খসে।